সহবাস করতে না দেওয়ায় স্ত্রীর বিশেষ অঙ্গে স্টিলের পাইপ ঢুকিয়ে পাশবিক নির্যাতন, গ্রেফতার স্বামী

কুমিল্লার মুরাদনগর উপজেলার ভূবনঘরে রাতে সহবাস করতে দিতে রাজি না হওয়ায় স্ত্রীকে (২৪) পাশবিক নির্যাতনের অভিযোগ উঠেছে স্বামীর বিরুদ্ধে। এ ঘটনায় স্ত্রীর অভিযোগের ভিত্তিতে বুধবার (১৭ ফেব্রুয়ারি) রাতে স্বামী শাকিবকে (২৭) আটক করেছে পুলিশ।বৃহস্পতিবার (১৮ ফেব্রুয়ারি) আদালতের মাধ্যমে তাকে জেলহাজতে পাঠানো হয়েছে। শাকিব ভূবনঘর গ্রামের আবুল হোসেনের ছেলে। অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, প্রায় আট বছর আগে শাকিবের সাথে দেবিদ্বার উপজেলার পূর্ব নবীপুর গ্রামের ওই নারীর বিয়ে হয়। বিয়ের পর থেকেই তার ওপর নির্যাতন চলতো।কিন্তু কিছু দিন আগে যৌতুকের দাবিতে নির্যাতন চলে। গত দেড় মাস আগে জমি কেনার কথা বলে আরো দুই লাখ টাকা যৌতুক দাবি করে শাকিব। কিন্তু ৯ ফেব্রুয়ারি সে জানিয়ে দেয় তার বাবার পক্ষে টাকা দেওয়া সম্ভব না। এ কথা শুনে শাকিব তার স্ত্রীকে মারধর করে। পরে ওইদিন রাতেই শাকিব তার স্ত্রী নিপাকে জোর পুর্বক সহবাস করতে চায়।এতে মানা করায় এর্লার্জির ওষুধের কথা বলে ঘুমের ওষুধ খাইয়ে দেয়। একপর্যায়ে ঘুমিয়ে গেলে শাকিব পাইপ আকৃতির স্টিলের একটি যন্ত্র তার স্ত্রীর বিশেষ অঙ্গে ব্যবহার করে তাকে আহত করে। এসময় তার চিৎকারে আশপাশের মানুষ ছুটে এলে শাকিব ঘটনাস্থল থেকে পালিয়ে যান। পরে গৃহবধূর মা এসে তাকে কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করান।এ বিষয়ে মুরাদনগর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. সাদেকুর রহমান বলেন, নির্যাতনের শিকার ওই গৃহবধূর অভিযোগের ভিত্তিতে বুধবার রাতে শাকিবকে গ্রেফতার করা হয়েছে। আদালতের মাধ্যমে তাকে জেল হাজতে প্রেরণ করা হয়।

Leave a Comment