যৌ’ন’ মি’ল’নে গা’র্ল’ফ্রে’ন্ড বা স্ত্রী প্রে’গ’ন্যা’ন্ট হলে ৫ মি’নি’টে বা’চ্চা ন’ষ্ট করার ঔ’ষ’ধের নাম

বাচ্চা ন’ষ্ট করা ও’ষুধের নাম কি? প্রতিদিনই ফেসবুক ফ্যানপেজে অনেক ম্যাসেজ আসে। সব ম্যাসেজর উত্তর দেওয়া সম্ভব হয় না।তাই পাঠকদের কাছে প্রশ্নটির বিস্তারিত তুলে ধ’রা হয় (প্রশ্নকারীর নাম ও ঠিকানা গো’পন রেখে)। আপনি ও আপনার সমস্যার কথা লিখতে পারেন অাম’দের ফেসবুক ফ্যানপেজে আজকের প্রশ্নঃ আমা’র ব’য়স ১৯ মাসিক অনিয়মিত।১ নভেম্বর আমা’র মাসিক হয়েছিল এরপর ২৬ তারিখের পর থেকে আমা’দের মি’লন হয়।আমর’া কোনো প’দ্ধতি ব্যবহার করিনি।মাসিক না হওয়ায় আজ ১৭ডিসেম্বর প্রেগন্যান্সি টেস্ট করাই এবং আমি প্রেগন্যান্ট এটা শিওর হই।আমা’র প্রেগন্যান্সির এখনো ১ মাস হয়নি এক্ষেত্রে বাচ্চা ন’ষ্ট করতে হলে করনীয় কী? উত্তরঃসাধারণভাবে বাচ্চা ন’ষ্ট না করার পরামর’্শ ডাক্তারমাত্রেই দিয়ে থাকেন | প্রথম গ’র্ভাবস্থায় ইউটেরাস বা জরায়ুর মুখ এত নরম ও সরু থাকে যে, যন্ত্রপাতি দিয়ে তা প্রসারিত করার সময় জরায়ু মুখ বা জরায়ুর পশি ছিঁড়ে গিয়ে র’ক্তস্রাব, প্রদাহ ‘হতে পারে | স্বা’মী বললেও মে’য়েদের বাবা মা বা অন্য সিনিয়র অ’ভিভাবকদের না জানিয়ে কখনই এই সময়ে গ’র্ভমোচনে রাজি হওয়া উচিত নয় | এছাড়া কোনওভাবে ফ্যালোপাইন টিউবে সং’ক্র’মণ হলে পরে টিউব ব্লক হয়ে ভবি’ষ্যতে স’ন্তান নাও ‘হতে পারে | তবে অবিবা’হিত মে’য়েদের ক্ষেত্রে সবদিক বিবেচনা করে গ’র্ভমোচন করতেই হবে | আর তা অবশ্যই উপযুক্ত শিক্ষিত ডাক্তারের কাছে | হাতুড়ে বা প্র’শিক্ষণপ্রা’প্ত নয় এমন ডাক্তারের কাছে গেলে ফুল বা ভ্রূণের অংশ জরায়ুর মধ্যে থেকে যেতে পারে, জরায়ুর মুখ ছিঁড়ে যেতে পারে, জী’বাণুর আ’ক্রমণ বা সেপটিক হয়ে পেরিটোনাইটিস ‘হতে পারে,আভ্যন্তরীণ র’ক্তস্রাবের কারণে মায়ের কোলাপস ও শক হয়ে মৃ’ত্যু পর্যন্ত ‘হতে পারে | দেশ পাড়াগাঁয়ে আজ এই অত্যাধুনিক যুগেও অনেক মে’য়ে গু’ণিন বা ওই জাতীয় পেশার লোকেদের কাছে (জরায়ুতে শিকড় বা কাঠি ঢুকিয়ে গ’র্ভমোচনের চেষ্টা) গিয়ে শেষে মৃ’ত্যুর কোলে ঢলে পড়ে | আরো পড়ুন প্রশ্ন: গ’র্ভাবস্থায় এক্স-রে করা নিষে’ধ কেন? বাচ্চা ন’ষ্ট করার সব প’দ্ধতিতেই এক ধরণের লম্বা নল জরায়ুতে ঢুকিয়ে গ’র্ভের শি’শুটিকে প্রথমে ক্ষ’ত-বিক্ষ’ত করা হয়। পরে ভ্যাকুয়াম সাকারের মাধ্যমে শি’শুটিকে শুষে আনা হয়। গ’র্ভপাতের সময়কার শি’শুটির অব্যাক্ত বেদনা কারো কানে পৌঁছে না। মানুষ নামের নরপশুর নি’র্মমতায় একটি নিষ্পাপ শি’শু মৃ’ত মাংসপিণ্ডে পরিণত হয়। যেসব মা ক্ষণিকের সু’খের জন্য নিজ গ’র্ভের স’ন্তানকে হ’ত্যা করে তাদের জন্য হৃদয় উগড়ে দেয়া সীমাহীন ঘৃণা। Abortion জিনিস টা কি??? নিচে একটু পড়ে দেখু’ন হৃদয়হীন মানুষের হৃদয়েও কমপনের সৃষ্টি হবে।। … লেখাটা লিখতে গিয়ে কতবার যে হাত কেপেছে পড়ে দেখু’ন…., নিজের বিবেকে নাড়া দেয় কিনা !!?? প্রথম মাস – হ্যালো আম্মু…..!! কেমন আছো তুমি? জানো আমিএখন মাত্র ৩-৪ইঞ্চি লম্বা!! কিন্তু হাত-পা সবই আছে তোমা’র কথা শুনতে পাই, ভালো লাগে শুনতে। আরো পড়ুন মাসিকের ১০ দিন পর মি’লন করলে বাচ্চা হবে কি? দ্বিতীয় মাস – আম্মু, আমি হাতের বুড়ো আ’ঙ্গু’ল চু’ষা শিখেছি, তুমি আমাকে দেখলে এখন বেবি বলবে! বাইরে আসার সময় এখনো হয়নি আমা’র, এখানেই উষ্ণ অনুভব করি খুব। তৃতীয় মাস – আম্মু তুমি কি জানো আমি যে একটা মেয়ে? পরী পরী লাগবে আমাকে, আমাকে দেখলে তুমি অনেক খুশি হবে, তুমি মাঝে মাঝে কাঁদো কেনো আম্মু ammu? তুমি কাঁদলে আমা’রও কা’ন্না পায়… চতুর্থ মাস – আমা’র মাথায় ছোট্ট ছোট্ট চুল গজিয়েছে আম্মু mother আমি হাত-পা ভালো ভাবে নাড়াতে পারি, মাথা নাড়াতে পারি, অনেক কিছুই করতে পারি। পঞ্চম মাস – আম্মু তুমি ডক্টরের doctor কাছে কেনো গিয়েছিলে? কি বলেছে ডক্টর? আমি তার কথা শুনতে পারিনি, তোমা’র কথা ছাড়া আমি কারো কথা শুনতে পারিনা।ষষ্ঠ মাস – আম্মু আমি অনেক ব্য’থা পাচ্ছি আম্মু, ডক্টর সুঁচের মতো কি যেনো আমা’র শ’রীরে ঢুকাচ্ছে, ওদের থামতে বলো আম্মু আমি তোমাকে ছেড়ে কথাও যাব’োনা আম্মু… স’প্তম মাস – আম্মু কেমন আছো? আমি এখন স্বর্গে আছি, একটা এন্জে’ল আমাকে নিয়ে এসেছে, এন্জে’ল বলেছে তোমাকে Abortion করতে হয়েছে, তুমি আমাকে কেনো চাওনি আম্মু?প্রতিটি Abortion মানে একটি হৃদস্পন্দন থেমে যাওয়া… একটি হাসি থেমে যাওয়া… দুটি হাত, যা কখনো কাউকে স্পর্শ করতে পারবেনা… দুটি চোখ, যা পৃথিবীর আলো দেখবেনা… আল্লাহ কে ভ’য় করুন।

Leave a Comment